বিজ্ঞানের সমস্ত বিষয়ে অনার্স চালুর জোড়ালো দাবি উঠেছে মালদার ঐতিহ্যবাহী চাঁচল কলেজে

উজির আলী,মালদা-চাঁচল:১৯ এপ্রিল

কলেজের বয়স পাঁচদশক পেরোলেও চালু হয়নি বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার পরিকাঠামো।যা নিয়ে হতাশায় ভুগছে এলাকার মেধবী পড়ুয়ারা। দ্রুত গৌড়বঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনস্থ চাঁচল কলেজে বিজ্ঞানের সমস্ত বিষয়ে অনার্স চালুর দাবি তুলেছেন পড়ুয়ারা।
উল্লেখ্য,১৯৬৯ সালে প্রতিষ্ঠিত হলেও এখনও পর্যন্ত চাঁচল কলেজে বিজ্ঞানের সমস্ত বিষয়ে অনার্স কোর্স চালু হয়নি।এর ফলে উচ্চশিক্ষায় সমস্যায় পড়ছেন এলাকার ছাত্রছাত্রীরা। উচ্চশিক্ষার জন্য হয় মালদা শহর, নয়তো রায়গঞ্জের উপর নির্ভর করতে হয়। তাঁরা দ্রুত এই কলেজে বিজ্ঞানের সমস্ত বিষয়ে অনার্স কোর্স চালু করার দাবি তুলেছেন। খুব দ্রুত তাঁদের সেই দাবি পূরণের আশ্বাস দিয়েছেন কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ।
চাঁচল কলেজের ইংরেজি অনার্স বিষয়ে প্রথম বর্ষ তৃতীয় সিমেস্টারের ছাত্রী সিউটি মণ্ডল জানাচ্ছেন, তাঁরও ইচ্ছে ছিল, বিজ্ঞান বিষয়ে পড়াশোনা করবেন। কিন্তু চাঁচল কলেজে শুধুমাত্র অঙ্ক বিষয়ে অনার্স কোর্স চালু থাকায় তাঁর সেই ইচ্ছে পূরণ হয়নি। তিনি চান, এই কলেজে দ্রুত বিজ্ঞানের সমস্ত বিষয়ের অনার্স কোর্স চালু করা হোক। তাহলে এলাকার ছাত্রছাত্রীরা উচ্চশিক্ষা থেকে বঞ্চিত হবেন না। কারণ, চাঁচল আর্থিকভাবে পিছিয়ে পড়া এলাকা হিসাবে পরিচিত।অনেকেরই বাইরে গিয়ে পড়াশোনা করার সামর্থ‍্য নেই।
চাঁচল সিদ্ধেশ্বরী ইন্সটিটিউশনের ছাত্রী, এবারের উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার্থী অঙ্কিতা মজুমদার। সে জানায়, তার ইচ্ছে কেমিস্ট্রি অনার্স নিয়ে পড়বে। কিন্তু চাঁচল কলেজে সেই সুবিধে না থাকায় তাকে হয় মালদা কিংবা রায়গঞ্জে যেতে হবে। প্রতিদিন এতটা পথ পাড়ি দিতে একদিকে যেমন সময়ের অপচয় হবে, তেমনই খরচও বাড়বে। তাই তার আর্জি, চাঁচল কলেজে দ্রুত বিজ্ঞানের সমস্ত বিষয়ের অনার্স কোর্স চালু করা হোক।
চাঁচল কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ অজিত বিশ্বাস জানান, অঙ্ক আর ভুগোল বিষয়ে অনার্স কোর্সে আসন সংখ্যা বৃদ্ধির জন্য কলেজের সভাপতি ইতিমধ্যে উদ্যোগ নিয়েছেন। বিষয়টি বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকেও জানানো হয়েছে। শুধু তাই নয়, ফিজিক্স, কেমিস্ট্রি এবং বায়োলজির বিভিন্ন বিষয়ে অনার্স কোর্স চালু করার পাশাপাশি পাস কোর্সেও আসন সংখ্যা বৃদ্ধির জন্য ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে আবেদন জানানো হয়েছে। তাঁর আশা, আগামী শিক্ষাবর্ষ থেকেই চাঁচল এলাকার ছাত্রছাত্রীরা এই কলেজে বিজ্ঞানের সমস্ত বিষয়ে অনার্স কোর্সে ভর্তি হতে পারবেন।
স্থানীয় বিধায়ক নীহররঞ্জন ঘোষ বলেন,চাঁচল কলেজ জেলার ঐতিহ্যবাহী একটি রাজ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান।এলাকাটি কৃষিপ্রধান এলাকা।সিংহভাগ মানুষই চাষবাসের উপর নির্ভর।তাদের সন্তানদের উচ্চশিক্ষা যেন লোকালে হয়, সেই বিষয়টি শীঘ্রই শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত‍্য বসুকে জানাব।

Leave a Reply

Your email address will not be published.