লকডাউনে তীব্র আকাল রক্তের,শিতলখুচি থানার পুলিশের উদ্যোগে হল রক্তদান শিবির।

মানসাইডেস্কঃকরোনা মোকাবিলায় দেশজুড়ে চলছে ২১ দিনের লকডাউন। অত্যন্ত জরুরি প্রয়োজন ছাড়া নাগরিকদের ঘর ছাড়তেই নিষেধ করা হয়েছে। সোশ্যাল সাইট, টিভি চ্যানেলগুলিতেও এই নিয়ে দিনভর চলছে সতর্কতামূলক প্রচার। লকডাউনের জেরে তীব্র সংকট তৈরি হয়েছে রক্তের। সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ার আতঙ্কে বন্ধ রয়েছে রক্তদান শিবির। ঘোরতর বিপাকে পড়েছেন নির্দিষ্ট সময় অন্তর রক্তের প্রয়োজন থাকা রোগীরা। সেই সংকট কিছুটা দূর করতে সাহায্যের হাত বাড়ালো শিতলখুচি থানা। পুলিশের উদ্যোগে হল রক্তদান শিবির।

এদিন শিতলখুচি থানা প্রাঙ্গনে রক্তদান শিবির অনুষ্ঠিত হয়। রক্তদান শিবিরকে ঘিরে প্রয়োজনীয় সব রকম সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নিয়েছিলেন শিতলখুচি থানা পুলিশকর্মীরা। রক্তদান শিবিরে আসা প্রত্যেককে সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নিতে আবেদন করা হয়েছিল। নিয়ম মেনে নির্দিষ্ট দূরত্বে দাঁড়িয়ে থেকেই প্রত্যেকেই রক্তদান করেন।

শিতলখুচি থানার ওসি কাজল সরকার জানান এদিন ৪০ জন শিতলখুচি থানার রক্তদান শিবিরে রক্তদান করেন।এদের মধ্যে ২জন মহিলাও ছিল। শিতলখুচি থানার এস আই ধীমান কার্জি সহ শিতলখুচি ব্লক স্বাস্থ আধি্কারিক সফিয়ার রহমান নিজেও ওই শিবিরে রক্ত দান করেন। ওই পুলিশ আধিকারিকের দাবি, তাদের এই উদ্যোগের জেরে সংকটের এই সময়ে কিছুটা হলেও রক্তের চাহিদা মিটবে।

 রক্তদান শিবির বন্ধ থাকায় দরুণ সংকটে পড়েছে নির্দিষ্ট সময় অন্তর রক্তের প্রয়োজন থাকা রোগীরা। বিশেষত থ্যালাসেমিয়ার রোগীদের সমস্যা বহুগুণে বেড়েছে। তাই ব্যাংকে রক্তের এখন দারুণ আকাল। সংকটের এই দিনে আবারও পাশে দাঁড়িয়েছে পুলিশ। জেলায় জেলায় পুলিশের উদ্যোগে হচ্ছে রক্তদান শিবির। সংগ্রহ করা রক্ত মাথাভাংগা ব্লাড ব্যাংকের হাতে তুলে দেওয়া হয়।

দেখুন ভিডিও

https://m.facebook.com/story.php?story_fbid=1064392583945055&id=525105514540434

Leave a Reply

Your email address will not be published.