উপসর্গহীনদের পরীক্ষা না করার সিদ্ধান্ত রাজ্যের

278 Views

ওয়েবডেস্কঃএকদিনে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধির নিরিখে ফের নতুন রেকর্ড গড়ল পশ্চিমবঙ্গ। শুক্রবার সেই একই দিনে উপসর্গহীন করোনা আক্রান্তদের নিয়ে রাজ্য স্বাস্থ্য দপ্তরের নতুন নির্দেশিকাকে কেন্দ্র করে বিতর্ক দানা বেঁধেছে। রাজ্যের স্বাস্থ্য দপ্তর এদিন হাসপাতালগুলিকে জানিয়েছে, উপসর্গহীন করোনা রোগীদের নতুন করে পরীক্ষা করার দরকার নেই। তাদের কোনও উপসর্গ বা শারীরীক সমস্যা না থাকলে তাদের রোগমুক্ত ধরে নিয়ে হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেওয়া যেতে পারে।

দিনদুয়েক আগে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা তাদের পর্যবেক্ষণে জানায় উপসর্গহীন রোগীদের ঝুঁকি কম। অনেক ক্ষেত্রে দেখা গিয়েছে, উপসর্গহীন আক্রান্তরা নিজে থেকেই সেরে উঠেছেন। তাদের থেকে সংক্রমণ ছড়ানোর আশঙ্কাও ক্ষীণ। যদিও পরে তা নিয়ে বিতর্ক তৈরি হওয়ায় সেই অবস্থান থেকে সরে আসে হু। এমনকী একই তথ্য কেন্দ্রীয় সরকারের আইসিএমআর-এর তরফেও জানানো হয়। এই পর্যবেক্ষণকে হাতিয়ার করে পশ্চিমবঙ্গে উপসর্গহীন আক্রান্তদের পরীক্ষা বন্ধ করে দিতে চলেছে বলে অভিযোগ। রাজ্যের দাবি, এমনিতেই ভিনরাজ্য থেকে শ্রমিকরা ফেরত আসার পর করোনা আক্রান্তের সংখ্যা হু হু করে বাড়ছে। এই পরিস্থিতিতে উপসর্গহীন রোগীদের থেকে গুরুতর সংক্রমিত রোগী খুঁজে বার করা বেশি দরকারি। তাই উপসর্গ না থাকলে এখন থেকে করোনা পজিটিভ রোগীদের সাত দিন পরে হাসপাতাল থেকে ছেড় দেওয়া যেতে পারে। তাদের নতুন করে পরীক্ষা করার দরকার নেই। রাজ্য সরকারের এই সিদ্ধান্ত সামনে আসার পরেই দানা বেঁধেছে বিতর্ক ও আশঙ্কা। এহেন সিদ্ধান্ত নিয়ে রাজ্য সরকার আদতে প্যান্ডোরার বাক্স খুলে দিতে চাইছে বলে বিরোধীরা অভিযোগ করেছেন। তাদের মতে, এর মাশুল দিতে হবে আম জনতাকে। করোনায় সংক্রমণ ও মৃত্যু নতুন করে আকাশ ছুঁতে পারে।

একই সঙ্গে সরকারের তরফে জানানো হয়েছে, তাদের পক্ষে আর ১৪ দিন সরকারি কোয়ারেন্টাইনে ভিনরাজ্য ফেরত শ্রমিকদের রাখা সম্ভব হবে না। ৭ দিন সরকারি কোয়ারেন্টাইনে থাকবেন তাঁরা। বাকি সাত দিন বাড়িতেই কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে তাঁদের।

বিশেষজ্ঞদের মতে, রাজ্যে করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট আসতে কখনো ১৫ দিনও সময় লেগে যাচ্ছে বলে অভিযোগ। এই সময় কমাতেই উপসর্গহীনদের পরীক্ষা বন্ধ করল রাজ্য সরকার। এদিকে একদিনে আক্রান্তের নিরিখে শুক্রবারই নতুন রেকর্ড তৈরি হয়েছে এরাজ্যে। আক্রান্তের মোট সংখ্যা ছাড়িয়েছে ১০ হাজারের গণ্ডি।এদিন সকাল ৯ টা পর্যন্ত গত ২৪ রাজ্যে নতুন করে আরও ৪৭৬ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এই নিয়ে রাজ্যে আক্রান্তের মোট সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ালো দশ হাজার ২৪৪। অন্যদিকে এই সময়ে আরো ৯ জন আক্রান্তের মৃত্যু হয়েছে বলে স্বাস্থ্য দপ্তরের প্রকাশিত রিপোর্টে উল্লেখ করা হয়েছে। যার মধ্যে ৪ জন কলকাতার বাসিন্দা। ফলে এই নিয়ে রাজ্যে করণা আক্রান্তের মৃতের সংখ্যা বেড়ে হল ৪৫১। বর্তমানে পাঁচ হাজার ৫৮৭ জন করোনা আক্রান্ত রোগী রাজ্যের বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এই সময় আরো ২১৮ জন রোগী সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গিয়েছেন। ফলে মোট ৪ হাজার ২০৬ জন রোগী আরোগ্য লাভ করলেন। সুস্থতার হার ৪১ দশমিক শূন্য পাঁচ এক শতাংশ ।গত ২৪ ঘন্টায় আট হাজার ৭৫৮ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এই নিয়ে রাজ্যে এখনও পর্যন্ত ৩ লাখ ১৫ হাজার ৬৯৯ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হলো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!